• ১)  খালি পেটে রসুন খেলে তা একটি শক্তিশালী অ্যান্টিবায়োটিক-এর মতো কাজ করে। 
  • ২) রসুনের মধ্যে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান থাকার ফলে মুখের ব্রণ  কমাতে বেশ সাহায্য করে। ব্রণর জন্য দায়ী ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে নির্মূল করে। রসুন খাবার পর ঠান্ডা জল খাওয়া প্রয়োজন।
  • ৩)আমাদের ত্বকে বিশেষ করে মুখে সাধারণত অতিরিক্ত তেল জমে ব্ল্যাকহেডস  তৈরি হয়। ব্ল্যাকহেডস কমাতেও রসুন বেশ সাহায্য করে। একটু রসুন ও টম্যাটো মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে মুখে মাখলে  ব্ল্যাকহেডস দূর হবে যেমন, সেই সঙ্গে ত্বক ও উজ্জ্বল হবে।
  • ৪) রসুনে উপস্থিত অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট  ‘সেল ড্যামেজ’ ও ‘এজিং’ রোধ করে। ব্রেনের সেল ড্যামেজ কম হলে আলঝেইমারস ও ডিমেনশিয়ার মতো রোগের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।
  • ৫) প্রতিদিন ২ কোয়া রসুন খালি পেটে খেলে রক্তের পরিশোধন ক্ষমতা বেড়ে গিয়ে রক্ত চলাচলে স্বাভাবিক গতি ফিরে আসে,  তাতে শরীর ভালো থাকে।
  • ৬)  রসুন উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে কাঁচা কিংবা হালকা সিদ্ধ করে  রসুন খেলে রক্তে খারাপ কোলেস্টেরল পরিমাণ কমবে ফলে হার্ট থাকবে ভালো থাকবে।
  • ৭)  রসুন হজম ও খিদে বাড়ানোর  কাজ করে।
  • ৮) রসুন সাঙ্ঘাতিক জ্বর, ডায়াবেটিস, বিষণ্ণতা এবং ক্যান্সার এর মত  রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। 
  • ৯)  রসুন  নিউমোনিয়া, ব্রংকাইটিস,  হাপানি, হুপিং কাশি ইত্যাদি প্রতিরোধ করে।
  • ১০) রসুন কোলেস্টরল কমাতে খুবই সাহায্য করে ফলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুকি  কম হয়। 
  • ১১) মাথার  চুলের খুশকি কমাতে ও চুল কালো রাখতে রসুন অসাধারণ কাজ করে।  
  • ১২) যাদের ঠান্ডা লাগার প্রবণতা রয়েছে, তাদের জন্য রসুন খুবই উপকারী।এর জন্য গার্লিক টি বানিয়ে খাওয়া যেতে পারে।
  • ১৩) গরম ভাতের সঙ্গে ঘিয়ে ভাজা রসুন খেলে ঠাণ্ডা লাগা তো কমবেই, সাইনাসাইটিসের কষ্ট থেকেও রেহাই মিলবে। প্রতিদিন রসুন খেলে নাক বন্ধ হওয়ার সমস্যা দূর হয়। 

  •  

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.